নিজস্ব প্রতিবেদক

অন্যকে জানাতে পারেন:

advertisement
প্রতীকী ছবি

নাটোরের লালপুরে সিদ্দিক আলী (৫৫) নামে এক বৃদ্ধের বিকৃত যৌনাচারে দশ বছর বয়সী এক শিশু গর্ভবতী হয়ে পড়েছে। ভুক্তভোগী ওই শিশুটি তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ে বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে গতকাল মঙ্গলবার লালপুর থানায় একটি মামলা করেছেন। রাতেই আসামি সিদ্দিক আলীকে গ্রেপ্তার করে আজ বুধবার তাকে আদালতে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

সিদ্দিক আলী উপজেলার বালিতিতা ইসলামপুর গ্রামের মৃত আবুল হোসেনের ছেলে।

মামলার বাদী ওই ছাত্রীর মা বলেন, ‌‘আমরা গরিব মানুষ, সংসার চালানোর তাগিতে প্রতিদিন সকালে আমরা স্বামী-স্ত্রী দুজনেই বাড়ির বাইরে কাজে চলে যাই, ফিরে আসি সন্ধ্যায়। বাড়িতে আমার তৃতীয় শ্রেণীতে পড়ুয়া মেয়েটি থাকে, স্কুলের সময় হলে স্কুলে যায় আবার ছুটি হলে বাড়ি আসে।’

তিনি আরও বলেন, ‘বাড়িতে লোক না থাকার সুযোগে ফুসলিয়ে এবং ভয় দেখিয়ে তার সাথে কুকর্ম করে বৃদ্ধ সিদ্দিক আলী। এভাবে দিনের পর দিন এমন কাজ করায় মেয়ে গর্ভবতী হয়ে পড়ে। তার শারীরিক পরিবর্তন আমাদের নজরে এলে মেয়েকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে ঘটনা প্রকাশ পায়। পরে তাকে থানায় নিয়ে গিয়ে মামলা করেছি।’

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে লালপুর থানর ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম জুয়েল জানান, অভিযুক্ত সিদ্দিক আলীকে (৫৫) গ্রেপ্তার করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। ওই ছাত্রীর জবানবন্দী রেকর্ড করার জন্য তাকেও আদালতে হাজির করা হয়েছে।

বাংলা/আরএইচ

advertisement

আপনার মন্তব্য