বিদেশ ডেস্ক

অন্যকে জানাতে পারেন:

advertisement
boeing-777
ছবি: সংগৃহীত

মালয়েশিয়া এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট ৩৭০-এর পাইলট পূর্বপরিকল্পিত উপায়ে গণহত্যা চালাতে ভারত মহাসাগরে আছড়ে পড়েছিলেন বলে মনে করছেন উড়োজাহাজ চালনা বিশেষজ্ঞরা। বিশেষজ্ঞদের একটি আন্তর্জাতিক দল রোববার রাতে ‘৬০ মিনিটস অস্ট্রেলিয়া’ অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে বলেছেন পাইলট জাহারি আহমেদ শাহ যাত্রী ও ক্রুদের গণহত্যা করে আত্মঘাতী হয়েছেন।

বোয়িং ৭৭৭ মডেলের উড়োজাহাজটির কিছু ধ্বংসাবশেষ ভারত মহাসাগরের তীরে ভেসে এসেছিল। অস্ট্রেলিয়ার ট্রান্সপোর্ট সেফটি ব্যুরোর সমন্বয়ে বিমানটির খুঁজতে ইতিহাসে সবচেয়ে বড় অনুসন্ধান অভিযান চালানো হয় সাগরতলে। দুই বছর খোঁজার পর নিষ্ফল ওই অভিযান ২০১৭ সালের জানুয়ারিতে বন্ধ ঘোষণা করা হয়।

সাগরতলের ওই অনুসন্ধানের নেতৃত্বে থাকা মার্টিন ডোলান দুর্ঘটনা সম্পর্কে বলেন, ‘এটা ছিল পূর্ব পরিকল্পিত, ইচ্ছাকৃত এবং দীর্ঘ সময় নিয়ে এটি করা হয়েছে।’ দুর্ঘটনার তদন্তকারী ল্যারি ভ্যান্স বলেন, বিমানটির পাইলট জাহারি আহমেদ শাহ ভেবেচিন্তে ওই দুর্ঘটনা ঘটিয়েছেন।

‘তিনি আত্মহত্যা করতে যাচ্ছিলেন, দুর্ভাগ্যক্রমে তিনি বিমানের সব আরোহীকেও হত্যা করছিলেন, এবং এটা তিনি ভেবেচিন্তেই করেছেন’, বলেন ভ্যান্স। বিমানের যাত্রী ও ক্রুদের অচেতন করতে জাহারি এটির ভিতরের বাতাসের চাপ কমিয়ে দেন এবং তা করার আগে নিজে অক্সিজেন মাস্ক পরে নেন।

বাংলা/আরএইচ

advertisement

আপনার মন্তব্য