ফিচার ডেস্ক

অন্যকে জানাতে পারেন:

advertisement
ছবি: সংগৃহীত

দেশে জামরুলের চাহিদা খুব একটা বেশি নয়। কিন্তু এ ফলটিতে রয়েছে অসাধারণ কিছু প্রাকৃতিক উপাদান। আর ডায়াবেটিসসহ আপনার বেশ কিছু রোগের প্রতিষেধক হিসেবেও এর অবদান কম নয়।

ফলটি ভারত, ইন্দোনেশিয়া, শ্রীলংকা, ফিলিপাইন, থাইল্যান্ডে প্রচুর জামরুল হয়। আমাদের দেশেও এখন বাণিজ্যিকভাবে জামরুলের চাষ হচ্ছে। সাধারণত মাঘ মাস থেকে চৈত্র মাসের মধ্যে গাছে ফুল আসে আর চৈত্র থেকে জ্যৈষ্ঠ মাসের মধ্যে পাকা জামরুল পাওয়া যায়।

দেখতে ছোট ফল হলেও কাজ করে সাইজে বড় ফলের সমান! এতে আছে তরমুজ ও আনারসের সমান খনিজ পদার্থ। আম ও কমলার চেয়ে তিনগুণ! ক্যালসিয়াম ধারণের দিক থেকেও আঙুরকে হার মানিয়েছে জামরুল।

একটি লিচুর সমান ক্যালসিয়াম পাবেন আপনি একটি জামরুলে। এখানেই শেষ নয়, জামরুলে আছে পেঁপে ও কাঁঠালের চেয়ে বেশি আয়রন এবং আম, কমলা ও আঙুরের চেয়ে বেশি ফসফরাস।

চলুন দেখে নেয়া যাক জামরুলের কী গুণ রয়েছে-

১. জামরুল ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায়।

২. ভিটামিন সি এবং ফাইবার থাকায় হজমশক্তি বাড়াতে সহায়তা করে।

৩. কোলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে জামরুল খুবই উপকারী।

৪. ডায়াবেটিসের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে কার্যকর ভূমিকা পালন করে এ ফলটি।

৫. মস্তিষ্ক ও লিভারের যত্নে টনিক হিসেবে কাজ করে।

৬. ভেষজগুণ সমৃদ্ধ ফলটি বাত নিরাময়ে ব্যবহার করে।

৭. চোখের নিচের কালো দাগ দূর করতেও জামরুলের ভূমিকা অনন্য।

৮. দিনে একটি তাজা জামরুল খেলে পুষ্টিহীনতা পূরণ হয়।

advertisement

আপনার মন্তব্য