নিজস্ব প্রতিবেদক

অন্যকে জানাতে পারেন:

তিতুমীর কলেজের ছাত্র রাজীব হোসেনের হাত হারানোর মামলায় দুই বাসচালকের জামিন নামঞ্জুর করেছে আদালত।

সোমবার ঢাকার মহানগর হাকিম নুর নাহার ইয়াসমিন বিআরটিসি বাসের চালক মো. ওয়াহিদ (৩৫) ও স্বজন বাসের চালক মো.খোরশেদ (৫০) জামিনের আবেদনের ওপর উভয়পক্ষের শুনানি গ্রহণ করে আদালত তাদের জামিন আবেদন নাকচ করেন ।

গত ৮ এপ্রিল মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শাহবাগ থানার এসআই মো. আফতাব আলী দুই দিনের রিমান্ড শেষে প্রতিবেদনসহ আসামিদের আদালতে হাজির করে মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত আসামিদের কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন। ওইদিন আদালত আসামিদের জেলহাজতে প্রেরণ করেন।

মামলার আসামি ওয়াহিদের পক্ষে তার আইনজীবী মোহাম্মদ ইউনুস ও খোরশেদের পক্ষে হেলাল উদ্দিন পাটোয়ারী জামিনের আবেদন করেন।

রাষ্ট্রপক্ষে আদালতে সংশ্লিষ্ট থানার সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা মো. মকবুলুর রহমান জামিনের বিরোধিতা করে বলেন, ভিকটিম একজন ছাত্র। দুই বাসের রেষারেষিতে তার হাত চলে গেছে। গত ৫ এপ্রিল এ দুই আসামির দুই দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

গত ৩ এপ্রিল বিআরটিসির একটি দোতলা বাসের পেছনের দরজায় দাঁড়িয়ে গন্তব্যে যাচ্ছিলেন রাজধানীর মহাখালীর সরকারি তিতুমীর কলেজের স্নাতক (বাণিজ্য) দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র রাজীব হোসেন (২১)। হাতটি ছিল বাসের সামান্য বাইরে। হঠাৎ পেছন থেকে স্বজন পরিবহনের একটি বাস বিআরটিসির বাসটিকে গা ঘেঁষে ওভারটেক করার সময় রাজীবের ডান হাত শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। দু-তিনজন পথচারী দ্রুত তাকে পান্থপথের শমরিতা হাসপাতালে নিয়ে যান। কিন্তু চিকিৎসকরা চেষ্টা করেও বিচ্ছিন্ন হাতটি রাজীবের শরীরে লাগাতে পারেননি।

আপনার মন্তব্য

Daraz Bangla New Year
advertisement

advertisement
advertisement