নিজস্ব প্রতিবেদক

অন্যকে জানাতে পারেন:

Obaidul Quader
ওবায়দুল কাদের। ছবি : সংগৃহীত

বিএনপিকে দেউলিয়াগ্রস্ত দল হিসেবে মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘বিএনপির মরা গাঙে আর জোয়ার আসবে না। গত ৯ বছর ধরে তাদের আন্দোলন করার কথা কেবল শুনে আসছি। তবে কখনও তাদের আন্দোলন করতে দেখিনি। তারা শুধু বলছে, আন্দোলন এই মাসে না, ওই মাসে। রোজার ঈদের পর না, কোরবানির ঈদের পর। এরপর আবার বলে পরীক্ষার পর। এরকম করতে করতে গেল ৯ বছর।’

বৃহস্পতিবার বিকেলে নরসিংদীর মোসলেহ উদ্দিন ভূঁইয়া স্টেডিয়ামে জেলা আওয়ামী লীগের জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বিএনপির গঠনতন্ত্রের ৭ ধারায় উল্লেখ ছিল, কোনও দণ্ডিত দুর্নীতিবাজ বিএনপি করতে পারবে না। কিন্তু সেই ধারা তারা রাতের আঁধারে বাদ দিয়ে দিয়েছে। দুর্নীতির দায়ে দণ্ডিত খালেদা জিয়াকে বাঁচাতে তারা গঠনতন্ত্রই বদলে ফেলেছে। এর মধ্য দিয়ে তারা মূলত দুর্নীতিকেই স্বীকৃতি দিয়েছে। বিএনপি এখন আত্মস্বীকৃত দুর্নীতিবাজদের দল।’

মনোনয়ন প্রত্যাশীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চালানো জরিপ দেখে একাদশ সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী বাছাই করা হবে। যারা জরিপে এগিয়ে থাকবেন, তারাই মনোনয়ন পাবেন। তবে মনোনয়ন পেতে দলের নাম ব্যবহার করবেন না, দলের সভানেত্রীর গ্রিন সিগন্যাল পাওয়ার কথা দাবি করবেন না। প্রার্থী হন, কিন্তু দলের ক্ষতি করবেন না।’

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পানিসম্পাদ প্রতিমন্ত্রী নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে জনসভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন– দলের উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য মোজাফফর হোসেন পল্টু, মুকুল বোস, শ্রমবিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্য সাংসদ নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন, আকতারুজ্জামান, রিয়াজুল কবির কাওছার, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশীদ, সাংসদ সিরাজুল ইসলাম মোল্লা, সাবেক সাংসদ আনোয়ারুল আশরাফ খান দিলীপ, জহিরুল হক ভূঁইয়া মোহন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল মতিন ভূঁইয়া, নরসিংদী পৌর মেয়র কামরুজ্জামান কামরুল প্রমুখ।

আপনার মন্তব্য

Daraz Bangla New Year
advertisement

advertisement
advertisement