বিদেশ ডেস্ক

অন্যকে জানাতে পারেন:

dron

ইউনিভার্সিটি অফ সাউথ অস্ট্রেলিয়া’র একদল গবেষক দূর থেকে মানুষের শ্বাস-প্রশ্বাস ও হৃদস্পন্দন মাপতে সক্ষম একটি ড্রোন আবিস্কার করেছেন। জাভান চাল এই গবেষণা টিমের নেতৃত্ব দেন।

একটি দুর্যোগ মুহূর্তে আপনাকে মূলত গুরুত্ব দিতে হবে কে বেঁচে আছে, কে মারা গেছে এবং কে মারা যাচ্ছে এই বিষয়গুলোর ওপর।

এ সকল সংকট পরিস্থিতে এই ড্রোনটি ম্যাপিংয়ের মাধ্যমে মানুষের সাধারণ অবস্থা নির্ণয় করতে পারবে, চাল এমনটাই জানান এই ড্রোন সম্পর্কে।

চাল এই ড্রোন সম্পর্কে আরও জানান, এই একই সফটওয়্যার মুখ শনাক্ত করতে পারে, হৃদস্পন্দন মাপতে পারে এবং প্রতিদিন এক লাখ মানুষের জন্য এটি করা যেতে পারে।

মানবিক সংকটের সময় এটি ব্যবহারের লক্ষ্য রয়েছে। এক মিলিমিটারের স্পন্দন দেখাতে পারে ড্রোনটি, ক্যামেরা ব্যবহার করে লক্ষ্য করা ব্যক্তির মাথা পর্যবেক্ষণ করে প্রতিটি বিটের জন্য।

এই ড্রোনটি মানবিক সংকটের সময়ও সহায়তা করবে ৬০ মিটার দূর থেকে মানুষের হৃদস্পন্দন মাপতে সক্ষম এই ড্রোনটি, এমনটাই মনে করেন চাল।

এছাড়াও তিনি জানান, ড্রোনটি ব্যবহার করা যেতে পারে গোয়েন্দাগিরি এবং অস্ত্রের মতো ঝুঁকিপূর্ণ কাজেও।

বাংলা/টিএ

আপনার মন্তব্য

Daraz Bangla New Year
advertisement

advertisement
advertisement