ক্রীড়া ডেস্ক

অন্যকে জানাতে পারেন:

সুয়ারেজ
ছবি: সংগৃহীত

আগামি মঙ্গলবার উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলর প্রথম লেগে চেলসির মুখোমুখি হবে বার্সেলোনা। সেই ম্যাচের আগে শনিবার এইবারের মাঠ থেকে ২-০ গোলে জয় নিয়ে নিজেদের আত্মবিশ্বাস দিগুন করলো দলটি।

এইবারের বিপক্ষে কাউকে বিশ্রাম না দিয়ে পুরো শক্তি নিয়েই খেলতে নেমেছিল বার্সেলোনা। প্রতিপক্ষের মাঠে নিজেদের গুছিয়ে নিতে কিছুটা সময় নেয় বার্সা। এ সুযোগেই ম্যাচের প্রথম মিনিট থেকেই আক্রমণ করে খেলতে থাকে স্বাগতিকরা। শুরুতেই গোলেরও কয়েকটি সুযোগ তৈরি করে দলটি। তবে প্রথম মিনিটে জসে আঞ্জেলের হেড অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। ম্যাচের সপ্তম মিনিটে ডানদিক থেকেই গার্সিয়ার নেয়া শট ফিরিয়ে দেন বার্সেলোনা গোলরক্ষক মার্ক-আন্ড্রে টের স্টেগেন।

ম্যাচের ১৬ মিনিটে পাল্টা এক আক্রমণে বার্সাকে লিড এনে দেন সুয়ারেজ। লিওনেল মেসির নিখুঁতভাবে বাড়ানো বল ধরে গোলরক্ষককে কাটিয়ে কোনাকুনি শটে লক্ষ্যভেদ করেন উরুগুয়ের এই স্ট্রাইকার। চলতি লিগে এটি ১৭তম গোল। তবে তিন মিনিট পরেই সমতায় ফিরতে পারতো স্বাগতিকরা। প্রায় ২৫ গজ দূর থেকে ফাবিয়ান ওরেয়ানা জোরালো শটে টের স্টেগেনকে পরাস্ত করলেও বল লাগে ক্রসবারে।

ম্যাচের ৩৭ মিনিটে ব্যবধান বাড়ানোর সুযোগ পান মেসি। সুয়ারেজ গোলরক্ষককে ফাঁকি দিয়ে বল দেন মেসিকে। তবে আর্জেন্টাইন এই তারকার নেয়া শট লাগে দূরের পোস্টে। চার মিনিট পর তার রক্ষণচেরা পাস ধরে ১২ গজ দূর থেকে গোলরক্ষক বরাবর শট মেরে বসেন আলবা।

বিরতি থেকে ফিরে বড় ধাক্কা খায় স্বাগতিকরা। ম্যাচের ৬৬ মিনিটে বুসকেটসকে ফাউল করায় হলুদ কার্ড দেখেন পাপে দিউপ। তবে রেফারির সিদ্ধান্তে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলে পাঞ্চ করায় দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন ম্যাচের শুরু থেকেই দুর্দান্ত খেলা ওরেয়ানা।

দশজনের স্বাগতিকদের চেপে ধরে বার্সা। ম্যাচের ৮৮ মিনিটে ব্যবধান বাড়িয়ে জয় নিশ্চিত করে আলবা। মেসির শট গোলরক্ষক ঠেকালেও বিপদমুক্ত করতে পারেননি। ফিরতি বল ফাঁকায় পেয়ে অনায়াসে জালে ঠেলে দেন স্প্যানিশ এই ডিফেন্ডার।

এইবারের বিপক্ষে গোলের দারুণ কিছু সুযোগ পেয়েছিলেন লিওনেল মেসি। কিন্তু সেগুলোকে কাজে লাগাতে পারেননি এদিন। প্রথমার্ধে তার করা দুর্দান্ত এক শট গিয়ে লাগে পোস্টে। চলতি মৌসুমে ১৪বার মেসির সামনে বাঁধা হয়ে দাঁড়ায় গোলপোস্ট। এ মৌসুমে যা অন্য যে কোন খেলোয়াড়ের চেয়েও বেশি।

এই জয়ের ফলে ২৪ ম্যাচ থেকে ৬২ পয়েন্ট নিয়ে যথারীতি সবার উপরে বার্সা। এক ম্যাচ কম খেলে দুইয়ে থাকা অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের চেয়েও ১০ পয়েন্ট বেশি। ৪৬ পয়েন্ট নিয়ে লা লিগার তিনে রয়েছে ভ্যালেন্সিয়া। শনিবার যারা ২-১ গোলে হারিয়েছে মালাগাকে। লিগে এদিন জয়ের স্বাদ পেয়েছে সেভিয়া এবং আলভেসও।

বাংলা/আরআই/এমএইচ

আপনার মন্তব্য

Daraz Bangla New Year
advertisement

advertisement
advertisement