বাংলা ডেস্ক

অন্যকে জানাতে পারেন:

ছবি: ইন্টারনেট

অনেক বাচ্চা সকালে খাবার খেতে চায় না, যদিও বেশিরভাগই বাচ্চারাই খাবার খাওয়া নিয়ে ঝামেলা করে আর এটা নিয়ে মা-বাবার চিন্তা ও উপক্রমের শেষ নেই। সকালের খাবার সবার জন্যই খুব গুরুত্বপূর্ণ।

বাচ্চাকে সকালে কি নাস্তা দিবেন? কেমন খাবার তার পছন্দ? কি খেলে তার ভাল লাগবে, কেমন খাবার খেলে সে যেথেষ্ট পরিমাণ পুষ্টি পাবে এই নিয়েই ভাবেন অনেকে। আসুন জেনে নেই বাচ্চাদের সকালের খাবার সম্পর্কে-

কেমন নাস্তা চাই শিশুর জন্য?
সকালের খাবার সারাদিনের শারীরিক এবং মানসিক শক্তির যোগান দেয়। ব্রেকফাস্টে দানাদার এবং আঁশযুক্ত খাবারে শিশুর মনোযোগ শক্তি এবং স্মরণ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায় যা শিশুর সুস্থ্যতার অতিমাত্রায় দরকারি।

ডিম:
সকালে চিনিযুক্ত খাবার কম খেয়ে ডিম খাওয়া প্রয়োজন। এর মধ্যে থাকা উপাদান মস্তিষ্ককে সচল রাখে। এছাড়াও আছে কলা ও বাদাম। তাই সকালের নাস্তায় এই উপাদানগুলোযুক্ত হলে দিনের প্রয়োজনীয় সকল পুষ্টিগুণ দিনের শুরুতেই পাওয়া সম্ভব।

ফল:
বাচ্চাদের যদিও পছন্দ হলো চকলেট, প্যানকেক, বার্গার, স্যান্ডউইচের মতো উচ্চ ক্যালরিযুক্ত খাবার তবুও দিনের শুরতেই এই ধরণের খাবার সকালে এড়িয়ে চলুন। উচ্চ ক্যালরির খাবারের পরিবর্তে শসা, ফল, বাদাম প্রভৃতি খেতে পারেন।

কেমন উপাদান থাকবে সকালের নাস্তায়?
সকালের খাবারে সুষম খাবার অর্থাৎ শর্করা, আমিষ বা প্রোটিন এবং ফাইবারের সমন্বয় রাখুন। ফলে দিনের শুরুতেই ভাল স্বাস্থ্যবান খাবার পাবে। সকালের নাস্তা খাওয়ার জন্য প্রায় ৩০-৪০ মিনিট আগেই ঘুম থেকে উঠে যান এটি স্বাস্থ্যের পক্ষে উপাদেয়।

তাজা ফলমূল, কলা, এবং অন্যান্য সব খাবার আগের রাতে খাওয়ায়র জন্য টেবিলে আগে থেকেই রাখুন। গবেষকেদের পরামর্শ অনুযায়ী সয়াক্লে ব্লেন্ড করা জুসের পরিবর্তে ফল খান এবং সঙ্গে এক গ্লাস পানি। জুস তৈরি করলে ফলের ভিটামিন, মিনারেল ও ফাইবার নষ্ট হয়ে যায়।

বাংলা/আরএইচ

আপনার মন্তব্য

advertisement

advertisement