নিজস্ব প্রতিবেদক

অন্যকে জানাতে পারেন:

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ছবি: সংগৃহীত

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে কারামুক্ত করে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০-দলীয় জোট নির্বাচনে যাবে।’

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সোমবার দুপুরে এমন ঘোষণা দেন। খালেদার মুক্তির দাবিতে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত এক ঘণ্টার মানববন্ধনে তিনি এ কথা ফখরুল।

এসময় ফখরুল বলেন, ‘খালেদা জিয়ার নেতৃত্বেই বিএনপি আগামী জাতীয় নির্বাচনে অংশ নেবে। তাকে ছাড়া দেশে আর কোনো নির্বাচন হবে না, হতে দেয়া হবে না। তাকে ছাড়া আমরা কোনো নির্বাচনেই অংশগ্রহণ করব না।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, আবদুস সালাম, জয়নাল আবদীন ফারুক, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি প্রমুখ। এ ছাড়া বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের নেতারাও মানববন্ধনে অংশ নেন।

জোট নেতাদের মধ্যে ছিলেন-কল্যাণ পার্টির মহাসচিব সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বীর প্রতীক, জেপির মোস্তফা জামাল হায়দার, এলডিপির ডা. রেদোয়ান আহমেদ, শাহাদাত হোসেন সেলিম, ন্যাপ মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভুইয়া, শহীদুন্নবী ডাবলু, এনপিপির মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তফা, জাগপার আসাদুর রহমান খান, ডেমোক্রেটিক লীগের সাইফুদ্দিন মনি, এনডিপির খন্দকার গোলাম মর্তুজা, মঞ্জুর হোসেন ঈশা, লেবার পার্টির মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, ইসলামী ঐক্যজোটের আবদুল করিম প্রমুখ।

মানববন্ধন শেষে ফেরার পথে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদুকে আটক করে পুলিশ।

আপনার মন্তব্য

advertisement

advertisement