বিদেশ ডেস্ক

অন্যকে জানাতে পারেন:

ছবি: সংগৃহীত

আমরা কথায় কথায় বলি থাকি, ছাগলে কী না খায়? অবশ্য এ প্রাণীটি ছাগল নয়, এটা ভেড়া। তাই বলে প্যাকেটের পর প্যাকেট সিগারেট শেষ করেই ফেলবে? এ কেমন কথা? কিন্তু ভেড়াটা এমন অবিশ্বাস্য কাজ করে যাচ্ছে প্রতিদিন। রীতিমত জাত ধূমপায়ীর মতন প্যাকেটের পর প্যাকেট সিগারেট খাচ্ছে ভেড়া। কিন্তু আগুন দিয়ে নয়, চিবিয়ে। তামাক চিবিয়ে খাওয়ার এই অভ্যাস থেকেই সিগারেটে বুঁদ হয়েছে এ ভেড়াটি।

ভারতের কর্ণাটক প্রদেশে এমন একটি ভেড়ার রয়েছে। রোজ এক প্যাকেট সিগারেট অথবা এক বান্ডেল বিড়ি ছাড়া ভেড়াটির একেবারেই চলে না। সিগারেট যদি না পায় লোকজনকে শিং উঁচিয়ে তেড়ে চলে আসে মারতে। সিগারেটের নেশা উঠলে মুখের সামনে সবুজ ঘাস কিংবা খড় যাই দেয়া হোক না কেন, তখন সে কিছুই খায় না। জোর করে খাইয়ে দিলেও ভেড়াটি মুখ ফিরিয়ে নেয়। কিন্তু একটা সিগারেট দিলেই, সে চিবিয়ে খেয়ে নেয়।

ভেড়ার মালিক ইয়াহওয়ান্ত জানান, সিগারেট না পেলেও ভেড়াটির জন্য আনতে হয় বিড়ির বান্ডেল। তবে সব সময় তাকে গাটের পয়সা খরচ করে সিগারেট কিংবা বিড়ি কিনতে হয় না। অনেক সময় স্থানীয় লোকজনও ভেড়াটিকে দেখতে এসে আদর করে দুই-চারটা সিগারেট খাইয়ে দিয়ে যায়। আর সিগারেট যদি না পায় সিগারেটের প্যাকেট শুঁকতে শুঁকতে চিবিয়ে খেয়ে ফেলে ভেড়াটি।

আশেপাশের লোকদের ধারণা, কোনোভাবে ভেড়াটি তামাকের স্বাদ পেয়েছিলো। তারপর থেকেই থেকেই সে সিগারেটে প্রতি আসক্ত হয়ে পড়ে।

অবশ্য স্থানীয় পশু চিকিৎসক বলছেন ভিন্ন কথা, পিকা নামের একটি রোগ থাকার জন্য ভেড়াটি ধূমপান বা তামাকে আসক্ত হয়ে পড়েছে বলে তিনি ধারণা করছেন। সাধারণত ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, ফসফরাসের অভাবে ভেড়া কিংবা ছাগলেরে এ ধরনের অসুখ হয়। তখন এরা সামনে যা পায় তা-ই খেতে থাকে। ঠিক যেমনটা হয়েছে এই ভেড়াটির। তবে ভেড়াটি যেভাবে করে সিগারেটে আসক্ত হয়ে পড়েছে তাতে করে শরীরে এভাবে নিকোটিন ঢুকতে থাকলে খুব বেশিদিন তাকে বাঁচানো যাবে না।

বাংলা/আরএইচ

আপনার মন্তব্য

advertisement

advertisement