বিদেশ ডেস্ক

অন্যকে জানাতে পারেন:

প্রতীকী ছবি

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চালু করা একটি প্ল্যাটফর্মে দাবি করা হচ্ছে, ১০ থেকে ১৫ বছরের শিশু-কিশোরীদের যৌনপল্লিতে যেতে বাধ্য করা হয়েছে। যাদের পাওয়া যাচ্ছে মাত্র ১০০ টাকায়।  

ভারতের নারী সমাজকর্মী শাইনা এনসি একটি প্ল্যাটফর্ম তৈরি করেছেন। যেখানে তিনি দেশটির নারী শিশুদের যৌনকর্মী তৈরির বিষয়ে বিভিন্ন তথ্য তুলে ধরেছেন। 

শাইনা এনসির ভাষ্য, মাত্র ১০০ টাকা দিলে নিষিদ্ধ পল্লিতে মিলছে শিশু যৌনকর্মী।  যাদের বয়স ১০ থেকে ১৫ বছরের মধ্যে। এই শিশুদের বয়সে বড় দেখাতে দেওয়া হচ্ছে হরমোন ইনজেকশন। এভাবে শিশুদের যৌনকর্মী তৈরিতে কাজ করছে রিকশাচালক থেকে শুরু করে উচু পদের কর্মকর্তারাও। 

ওয়ান ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, এ বিষয়ে প্রমাণ হিসেবে শাইনা এনসি একটি ঘটনা সামনে এনেছেন। সম্প্রতি ভারতের মহারাষ্ট্রের পুলিশ একটি নিষিদ্ধ পল্লিতে তল্লাশি চালিয়ে বেশকিছু যৌনকর্মীকে গ্রেপ্তার করে।  তাদের মধ্যে ১৪ বছরের এক কিশোরীও ছিল। 

১৪ বছরের ওই কিশোরী পুলিশকে জানায়, নিষিদ্ধ পল্লির প্রধান মাত্র ১০০ টাকার জন্য তাকে শরীর বেচতে বাধ্য করত। দিনে অন্তত ৩০ জন গ্রাহকের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করতে হত তাকে। তাকে বড়দের মতো দেখানোর জন্য হরমোন ইনজেকশনও দেওয়া হতো। 

সামাজিক প্ল্যাটফর্মে করা ওই পিটিশনে সমাজকর্মী শাইনা এনসি আরো জানান, নিষিদ্ধ পল্লি থেকে যখন ১৪ বছরের ওই কিশোরীকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে, তখন সেখানেই ছিল গ্রাহক ও নিষিদ্ধ পল্লির ব্যবসার প্রধানরা। কিন্তু, পুলিশ যাওয়ার পরে তারা সেখান তেকে পালিয়ে যায়। 

আপনার মন্তব্য

advertisement