বিদেশ ডেস্ক

অন্যকে জানাতে পারেন:

এটিএমে (অটোমেটেড টেলারিং মেশিন) বুথে গিয়ে ৫০০ রুপি তুলতে চাইলে বেরিয়ে আসছে গুনে গুনে ২৫ হাজার রুপি। পাঁচ হাজার রুপি তুলতে চাইলে হাতে আসছে ৫০ হাজার রুপি। আর পাঁচ হাজারের বেশি রুপি এটিএম থেকে তুলতে গেলে একেবারে নাকি কড়কড়ে দেড় লাখ রুপি বেরিয়ে আসছে। এমনই আজব কাণ্ড ঘটেছে দিঘায় ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার একটি এটিএমে।

ব্যাংক কর্তৃপক্ষ বলছে, সফটওয়্যারে ত্রুটির কারণেই এ ঘটনা ঘটেছে।  

পুলিশের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, এক পর্যটক ওই এটিএম থেকে পাঁচ হাজার রুপি তুলতে গেলে তাঁর হাতে ৫০ হাজার রুপি বেরিয়ে আসে। বাড়তি টাকা পুলিশকে ফিরিয়ে দিতে গেলেই টনক নড়ে ব্যাংক কর্তৃপক্ষের। ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া কর্তৃপক্ষ তখন হিসেব কষতে বসে দেখে, ইতিমধ্যেই কয়েক লাখ রুপি বেরিয়ে গিয়েছে। প্রায় ২৭ জন গ্রাহক ওই এটিএম থেকে টাকা তুলেছে। এটিএম থেকে বেরিয়ে গেছে প্রায় ১৭ লাখ রুপি।

এরপরই তল্লাশি শুরু করে দিঘা পুলিশ। এটিএম থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে শুরু হয় তল্লাশি। কোনো পর্যটক নির্ধারিত সময়ের আগে হোটেল ছাড়তে চাইলে পুলিশকে খবর দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। শেষপর্যন্ত গ্রাহকদের রুপি তোলার সময় ও ছবি মিলিয়ে খোঁজ চালিয়ে ১৩ লাখ উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে বলে জানিয়েছে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। বাকি রুপি উদ্ধারের জন্য তদন্ত চলছে।

আপনার মন্তব্য

Daraz Bangla New Year
advertisement

advertisement
advertisement