বিদেশ ডেস্ক

অন্যকে জানাতে পারেন:

ছবি : সংগৃহীত

এ হাঙর কেমন হাঙর? কিম্ভূত মুখ! ৩০০ পাটি দাঁত। আর পাঁচটা হাঙরের মতো আচরণও নয় তার। এমন বিরল প্রজাতির হাঙরের দেখা মিলল পর্তুগালের আলগার্ভের সমুদ্র সংলগ্ন এলাকায়। প্রায় ৫ ফুট লম্বা এই হাঙরের খোঁজ মেলায় বিজ্ঞান জগতে শোরগোল পড়ে গিয়েছে। ফের উল্টে দেখা হচ্ছে ইতিহাসের পাতা।

এই বিরল প্রজাতির প্রাণীকে ফ্রিল্ড হাঙর বলা হয়। বিজ্ঞানের ভাষায় তার নাম ক্লামিডোসালিকাস অ্যাঙ্গুনেস। থাকে সমুদ্রের প্রায় অতলে।

বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, সমুদ্রের ৩৯০ থেকে ৪ হাজার ফুট গভীরে এই প্রাণীর যাতায়াত। মনে করা হচ্ছে ক্রেটাসিয়াস যুগের পরে টাইরানোসরাস রেক্স সময় থেকেই এই হাঙরের অস্তিত্ব রয়েছে।

বিজ্ঞানীদের ধারণা, সেদিন ফ্রিল্ড হাঙরের সঙ্গে আজকের এই হাঙরের কোনও তাফাত্ নেই। শরীরে বাইরে এবং ভিতরের কোনও পরিবর্তন ঘটেনি। তা কেন? বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, এই প্রাণী সমুদ্রের এত তলায় বসবাস করে যে, উপযুক্ত পুষ্টির অভাবে এদের কোনও বিবর্তন ঘটেনি। ২০০৭-এ জাপানি ফিশারম্যান এমনই হাঙরের খোঁজ পান। জাপানি গবেষকদের মতে, ৬১ শতাংশ সিফালোপডস জাতীয় (অক্টোপাস, স্কুয়িডস) খাদ্য খেয়ে থাকে ফ্রিল্ড হাঙর।

আপনার মন্তব্য