নিজস্ব প্রতিবেদক

অন্যকে জানাতে পারেন:

ছবি: সংগৃহীত

টিভি ক্যামেরার সামনে দাঁড়ানো নিয়ে হাতাহাতি, মারামারিতে জড়ালেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা।

বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় রাজধানীর বকশীবাজারে কারা অধিদপ্তরের প্যারেড গ্রাউন্ডে স্থাপিত অস্থায়ী আদালতে জামিন নিতে আসেন খালেদা জিয়া। জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় জামিন তাকে জামিন দেন ঢাকার বিশেষ জজ আদালত- ৫ এর বিচারক মো. আখতারুজ্জামান। এরপর ফৌজদারি কার্যবিধির ৩৪২ ধারায় আত্মপক্ষ সমর্থন করে বক্তব্য দিয়ে দুপুর ১টা ২৫ মিনিটের দিকে আদালত অঙ্গন ত্যাগ করেন খালেদা জিয়া। এর কিছুক্ষনের মধ্যেই আদালতের কার্যক্রম সাংবাদিকদের অবহিত করতে বিভিন্ন বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে ক্যামেরার সামনে হাজির হন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। কিন্তু কে আগে সামনে থাকবে এ নিয়ে বেশকজন তর্ক ও ধাক্কাধাক্কি শুরু করেন। এসময় ঢাকা আইনজীবী সমিতির সভাপতি খোরশেদ আলমকে ধাক্কা দেন বিএনপিপন্থী আইনজীবী মির্জা মোহাম্মদ।

এ নিয়ে দুজনের মধ্যে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়। ঢাকা বারের সভাপতির সঙ্গে এমন আচরণ মেনে নিতে পারেননি তার অনুসারীরা। একপর্যায়ে খোরশেদ আলমের অনুসারীরা আদালতের বারান্দার সামনে মির্জা মোহাম্মদকে মারধর করেন। এসময় বিএনপিপন্থি আইনজীবী হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়ে পরে সিনিয়র আইনজীবী ও পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। ঢাকা বারের সভাপতি খোরশেদ আলম বলেন, ওই আইনজীবী সরকারের দালাল। ওর কত বড় সাহস! ঢাকা বারের সভাপতিকে ধাক্কা দিয়েছে। এজন্যই পরিস্থিতি এমন হয়েছে।

আপনার মন্তব্য