বিনোদন প্রতিবেদক

অন্যকে জানাতে পারেন:

AHARE JIBON
ছবি: সংগৃহীত

‘আহারে জীবন! আহা জীবন’ এই আফসোস এই বেদনা এখন ছড়িয়ে পরছে চারিদিকে। নির্মাতা মোস্তফা সারওয়ার ফারুকী এই বেদনা ছড়িয়ে দিচ্ছেন চিরকুটের মাধ্যমে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এখন ‘আহা জীবন আহারে জীবনের’ মাতম তুলে ছড়িয়ে দিচ্ছে সে খবর। 

ডুব সিনেমার এক মাত্র গান আহারে জীবন রিলিজ করার ২৪ ঘণ্টা পার হওয়ার আগেই এক লাখ মানুষ দেখে ফেলেছে গানটি। বৃহস্পতিবার রাত ৮টায় রিলিজ করা হয় গানটি। রিলিজের এক ঘণ্টার ভেতরই ৯ হাজার মানুষ দেখেন গানটি। রাতেই অনেকে ফেসবুকে গানটি শেয়ার দেয়। শুক্রবার দুপুর ২টায় পর্যন্ত এই সংখ্যা ছিলো ১ লাখ ৭হাজার ৫শ৩৪।

গানটি রিলিজ দেয়ার জন্য আলাদা ভাবে এর শুটিং করে ভিডিওটি নির্মাণ করেন ফারুকী। বরাবরের মতোই সিনেমার প্রচারে বৈচিত্র আনা এই নির্মাতা এবার সিনেমার একমাত্র গানটি রিলিজের ক্ষেত্রেও বৈচিত্র এনেছেন।

এই গানটি তৈরি করেছে ব্যান্ড চিরকুট। গত ১০ আগস্ট মুধুমিতা সিনেমা হলে গানটির শুটিং হয়।
গানটি তৈরির পেছনের কিছু গল্প শেয়ার করতে গিয়ে নিজের ফেসবুকে স্টাটাসে মোস্তফা সারওয়ার ফারুকি লিখেছেন, ‘এই গানটার জন্য চিরকুটকে অনেক জ্বালানো হইছে। আমি জানিনা কয়টা ড্রাফ্ট ওরা করছে, আর কতবার লেখা হইছে। শ খানেক হবে।

প্রায় চার মাস আমরা ব্যর্থতার বৃত্তে ঘুরপাক খেয়ে এক পর্যায়ে ধরেই নিছি এবার আর গান হবে না। আশা ছেড়ে দিয়ে একদিন বিজ্ঞাপণের কাজের ফাঁকে স্টুডিওতে আড্ডা দিচ্ছি। ছোকরা মিউজিক ডিরেক্টর পাভেল গিটার নিয়ে এমনিতেই টুংটাং করতেছিলো। আমি শুইনা বললাম, কি বাজাইলি? আবার বাজাতো।
আবার বাজাইলো। আমি বললাম, সুমি আপা এই ধুনের উপরই গান লিখেন।
আর তার ফলাফল এই গান। 

সবই উপরওয়ালার ইচ্ছা। কখন আসবে, আর কখন আসবে না তা কি আর আমরা জানি?’

আপনার মন্তব্য

advertisement