বাংলা ডেস্ক

অন্যকে জানাতে পারেন:

Khaleda Zia
বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। ছবি: সংগৃহীত

আগামী ২২ অক্টোবর দেশে ফিরছেন বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। লন্ডন থেকে নভেম্বরে দেশে ফেরার কথা থাকলেও ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের সাথে বৈঠকের শিডিউল পাওয়ায় সময়ের আগেই দেশে ফিরবেন।

শুক্রবার যুক্তরাজ্য বিএনপির এক শীর্ষ নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে এ কথা জানিয়েছেন।

বিএনপির ওই নেতা বলেন, ‘আগামী ২২ অক্টোবর এমিরেটস এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে তিনি বাংলাদেশের উদ্দেশে রওনা দিবেন। ফেরার পথে সংযুক্ত আরব আমিরাত বিমানবন্দরে যাত্রা বিরতিতে দেশটির প্রবাসী বিএনপি নেতাদের এক প্রতিনিধিদলের সাথে দেখা করবেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘যেকোন মূল্যে নির্বাচনে অংশ নেয়ার পরিকল্পনার অংশ হিসেবে ভারতের সাথে লবিংয়ে মনোনিবেশ করেছেন বেগম জিয়া। ২০১৯ সালের নির্বাচনে যেনো সকল দল অংশ নিতে পারে এবং নিরপেক্ষ নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি করা হয় এজন্য বর্হির্বিশ্বের সমর্থন আদায়ের চেষ্টা করবে বিএনপি।’

এদিকে, বেশ কয়েকটি মামলায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানার ব্যাপারে বিএনপি চেয়ারপারসনের মনোভাব বা প্রতিক্রিয়ার ব্যাপারে যুক্তরাজ্য বিএনপির এই নেতা জানান, 'ওইসব মিথ্যা মামলা নিয়ে তিনি বিচলিত নন। মামলাগুলো তিনি আইনগতভাবে মোকাবেলা করার জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা দিয়েছেন। ইতোমধ্যে যুক্তরাজ্য বিএনপির উদ্যোগে লন্ডনে এসব মিথ্যা মামলার বিরুদ্ধে একটি প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ১৫ জুলাই চোখের চিকিৎসার জন্য লন্ডনে যান বেগম জিয়া। ৩ মাসের বেশি সময় লন্ডনে থাকলেও বেগম জিয়া ব্রিটেনের নেতা-কর্মীদের নিয়ে এখনো কোন সভা করেননি।

যাওয়ার আগে সভা করার সম্ভাবনাও নেই বলে জানিয়েছেন বিএনপির এই শীর্ষ নেতা। তবে যাওয়ার আগে যুক্তরাজ্য বিএনপির সিনিয়র নেতাদের সাথে একটি সৌজন্য সাক্ষাতের ব্যবস্থা হতে পারে বলে জানা গেছে।

আপনার মন্তব্য

advertisement