নিজস্ব প্রতিবেদক

অন্যকে জানাতে পারেন:

ছাত্রীর লিখে যাওয়া সেই চিরকুট। ছবি: সংগৃহীত

‘আমি যে কাজ করিনি সে কাজের জন্য আমাকে কেন দায়ী হতে হবে। আমার জন্য আমার মা-বাবা কোনো রকম অসম্মান হতে না হয়। তাই আমি মৃত্যুকে বেছে নিলাম। আমার মৃত্যুর জন্য জাফর, খোকন দায়ী’ এটি আশুলিয়ার ১০ম শ্রেণির এক ছাত্রীর সুইসাইড নোটে লেখা ছিল।

মঙ্গলবার রাতে আশুলিয়ার কলেশ্বরী এলাকার শিমুলিয়া শ্যামা প্রসাদ উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির ছাত্রী শিলা আক্তার আত্মহত্যার সময় সুইসাইড নোট লিখেছেন। যাতে জাফর ও খোকন নামের দুজনকে দায়ী করা হয়েছে।

নিহতের পরিবারের বরাত দিয়ে আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল আউয়াল জানান, কলেশ্বরী এলাকার আওলাদ হোসেনের মেয়ে শিলা দুপুরে স্কুল থেকে ফিরে ঘরের দরজা বন্ধ করে দেয়। র্দীঘসময় কোনো সাড়া না পেয়ে বাবা আওলাদ হোসেন দরজায় ধাক্কা দেয়।

ভেতরে কোনো সাড়া না পেয়ে ঘরের জানালায় উকি দিলে দেখতে পায় মেয়ে শিলা আক্তারের ঝুলন্ত লাশ। পরে অন্য ঘরের উপরের অংশ দিয়ে শিলার ঘরে প্রবেশ করলে দেখতে পায় টেবিলে রাখা একটি চিরকুট। পরে থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে সুইসাইড নোট ও শিলার মরদেহ উদ্ধার করে।

ওসি আরও জানান, প্রাথমিকভাবে জাফর ও খোকন কে বা কারা তাদের পরিচয় পাওয়া যায়নি। তাদের পরিচয় জানার চেষ্টা চলছে। নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। এ ব্যাপারে আশুলিয়া থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

আপনার মন্তব্য

advertisement