অন্যকে জানাতে পারেন:

প্রতীকী ছবি

বিধবা হলো সেই সকল মহিলা যাদের স্বামী মারা গেছেন। অনেকে নতুন বিবাহিত হয়েও বিবাহিত হতে পারেন আবার অনেকে বিধবা হন সংসার জীবনের মাঝ/শেষ বয়সে এসে। বিধবা হলেই একটি মেয়ের জীবনে নেমে আসে ঘোর অন্ধকার। অনেক পরিবেশে অনিশ্চিত হয়ে পড়ে তার জীবন যাপন। আবার অনেক পরিবেশে স্বামীর মৃত্যুর জন্য ওই নারীকেই দায়ী করা হয়ে থাকে।

নতুন বিবাহিত কেউ বিধবা হলে পরিবারের চাপে অথবা বাকি জীবন ভাল থাকতে নতুন করে আবার অনেকেই বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। তবে এবার নতুন হোক বা পুরাতন বিধবা বিয়ে করলেই পাওয়া যাবে ২ লাখ রুপি পুরস্কার। বিধবা বিয়ের উৎসাহ দিতেই ভারতের মধ্যপ্রদেশের সামাজিক ন্যায়বিচার বিভাগ এ ঘোষণা দিয়েছে।

১৮৬৫ সালের বিধবা বিয়ের আইনের পর এটাই প্রথম উদ্যোগ। এই প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে প্রতি বছরে এক হাজার বিধবা বিয়ে হবে আশা করছে মধ্যপ্রদেশ সরকার। জুলাই মাসে, বিধবা বিয়ের উৎসাহ দিতে কেন্দ্রীয় সরকারকে একটি নীতিমালা প্রণয়নে নির্দেশনা দেন ভারতের সুপ্রিমকোর্ট। এ নির্দেশনা বাস্তবায়ন করতেই এই পুরস্কারের ঘোষণা দিল রাজ্যটি।

এ প্রকল্প বাস্তবায়নে বছরে ২০ কোটি রুপি বরাদ্দ দিয়েছে মধ্যপ্রদেশ সরকার। অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে ছাড়পত্র নিয়ে মন্ত্রিসভায় তোলা হবে চূড়ান্ত প্রকল্প। এই প্রকল্পের অপব্যবহার রোধে কিছু শর্তারোপ করা হয়েছে। শর্তগুলো হচ্ছে- বিধবাকে যে বিয়ে করবে তাকে অবিবাহিত হতে হবে। আর তার বয়স হতে হবে ১৮-৪০ বছর। এছাড়া বিয়েটা অবশ্যই জেলার কালেক্টরকে নথিভুক্ত করতে হবে।

আপনার মন্তব্য

advertisement