বিদেশ ডেস্ক

অন্যকে জানাতে পারেন:

Risto Siilasmaa
নোকিয়ার চেয়ারম্যান রিসটো সিলাসমা। ছবি: সংগৃহীত

বিশ্ববিখ্যাত ফোন কোম্পানি নোকিয়ার চেয়ারম্যান তিনি, বয়সও কম নয়, ৫১ বছরে পা দিয়েছেন। টাকা-পয়সা বা খ্যাতি কোনো কিছুরই কমতি নেই। পরিপূর্ণ স্টাবলিশ একজন মানুষ রিসটো সিলাসমা। তবে পরিপূর্ণ জীবনের এই সময়ে এসেও জ্ঞান অর্জনের ক্ষেত্রে পিছিয়ে থাকতে চান না তিনি। তাই এই বয়সে এসেও ভর্তি হয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ে।

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা-আর্টিফিশিয়াল ইনটেলিজেন্স বিষয়ে স্টাডি করতে স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালিত এআই প্রোগ্রামিং-বিষয়ক কয়েকটি অনলাইন কোর্সে ভর্তি হয়েছেন রিসটো সিলাসমা।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে পাঠানো এক ই-মেইলে রিসটো জানান, ‘এআই নিয়ে আমার খুব গভীর জানাশোনা নেই—এটা বুঝতে পারছি। তাই ৩০ বছর পর আবার প্রোগ্রামিং নিয়ে পড়াশোনা শুরু করতে যাচ্ছি।’

পড়াশোনা করলেও তিনি যে ওই বিষয়ের প্রোগামার হবেন না, তা জানিয়ে নোকিয়ার চেয়ারম্যান বলেন, এ খাতে সক্ষমতা ও সীমাবদ্ধতার বিষয়গুলো আরও গভীরভাবে বুঝার জন্যই মূলত এই কোর্স করা।

সাম্প্রতিক সময়ে স্বাস্থ্য, আর্থিক খাতসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে তথ্য বিশ্লেষণসহ নানা কাজে আর্টিফিশিয়াল ইনটেলিজেন্সের অ্যালগরিদম ব্যবহার করা হচ্ছে। নোকিয়া এ ক্ষেত্রেও এগিয়ে থাকতে চায়।

নোকিয়াকে ফিনল্যান্ডের মোবাইল নির্মাতা থেকে বিশ্বের বৃহত্তম টেলিকম নেটওয়ার্ক যন্ত্রাংশ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হিসেবে রূপান্তরের জন্য প্রশংসা কুড়িয়েছেন রিসটো সিলাসমা।

আপনার মন্তব্য

advertisement