বিদেশ ডেস্ক

অন্যকে জানাতে পারেন:

রিনাত আখমেতশিন, ট্রাম্প জুনিয়র, ভেসেলনিৎসকায়া

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ছেলে ডোনাল্ড ট্রাম্প জুনিয়রের সঙ্গে রুশ আইনজীবীর আলোচিত বৈঠকে সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের এক গোয়েন্দা কর্মকর্তাও উপস্থিত ছিলেন। রিনাত আখমেতসিন নামে ওই কর্মকর্তা গত বছর ট্রাম্প টাওয়ারে অনুষ্ঠিত বৈঠকটিতে তাঁর থাকার বিষয়টি মার্কিন গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

সাবেক সোভিয়েত গোয়েন্দা রিনাত আখমেতসিন বার্তা সংস্থা অ্যাসোসিয়েটেড প্রেসকে বলেন, তিনি গোয়েন্দা সংস্থার সামরিক ইউনিটে কাজ করেছেন। তবে গুপ্তচরবৃত্তির আনুষ্ঠানিক প্রশিক্ষণ তাঁর ছিল না। আখমেতসিন বলেন, তিনি জিনস ও টি-শার্ট পরা অবস্থায় ঝোঁকের বশে হুট করে রুশ আইনজীবী নাতালিয়া ভেসেলনিৎসকায়ার সঙ্গে ওই বৈঠকে যোগ দেন। তিনি বলেন, ভেসেলনিৎসকায়া ইঙ্গিত দিয়েছিলেন, হিলারি প্রচারণার জন্য অবৈধ উৎস থেকে অর্থ নিয়ে থাকতে পারেন। তবে ট্রাম্প জুনিয়র প্রমাণ চাইলে তিনি বিষয়টি নিয়ে তাঁদেরই খোঁজখবর করার পরামর্শ দেন। আখমেতসিন বলেন, এতে বৈঠকে একেবারেই আগ্রহ হারিয়ে ফেলেন ট্রাম্প-পুত্র। তিনি বলেন, ‘সত্যি বলতে কী, এ বৈঠক নিয়ে যে এত কিছু হতে পারে, তা ভাবতেই পারিনি।’

রুশ নাগরিক আখমেতসিন পরবর্তী সময়ে যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসী হয়ে সে দেশের নাগরিকত্ব পান। তিনি রাশিয়ার নাগরিকত্ব ত্যাগ করেননি।

আখমেতসিন বর্তমানে একজন নিবন্ধিত লবিস্ট (তদবিরকারী) হিসেবে কাজ করেন। সাম্প্রতিক সময়ে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের ২০১২ সালের ম্যাগনিটস্কি অ্যাক্ট পাল্টানোর জন্য তদবির করছেন। ওই আইনের বলে কিছুসংখ্যক জ্যেষ্ঠ রুশ কর্মকর্তার সম্পদ জব্দ করা হয়েছে।

ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ রিনাত আখমেতসিন সম্পর্কে বলেন, তাঁর সম্পর্কে রুশ সরকারের কিছু জানা নেই।

গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যমে খবর বের হয়, মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রচারাভিযানের মধ্যে ট্রাম্প টাওয়ারে ডোনাল্ড ট্রাম্প জুনিয়র প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ঘনিষ্ঠ আইনজীবী ভেসেলনিৎসকায়ার সঙ্গে বৈঠক করেন। ট্রাম্পের প্রতিদ্বন্দ্বী হিলারি ক্লিনটনের জন্য ক্ষতিকর তথ্য সংগ্রহ করাই ছিল ট্রাম্প জুনিয়রের ওই বৈঠকে যোগ দেওয়ার লক্ষ্য। ট্রাম্প জুনিয়র ও আইনজীবী ভেসেলনিৎসকায়া উভয়েই বৈঠকের কথা স্বীকার করলেও সেখানে নির্বাচন প্রভাবিত করার বিষয়ে আলোচনা হয়নি বলে দাবি করেছেন।

আপনার মন্তব্য